আসল ভিটমেট অ্যাপস ডাউনলোড – Vidmate Download

আসল ভিটমেট অ্যাপস ডাউনলোড - Vidmate Download

বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ার যুগে সোশ্যাল মিডিয়াগুলো তাদের কপিরাইট পলিসির কারনে ভিডিও সরাসরি ডাউনলোড করার অনুমতি দেয়না বা এরকম কোন অপশন রাখেনি৷ কিন্তু কিছু অ্যাপ ব্যবহার করে এসব ভিডিও ডাউনলোড করা যায়। এসব অ্যাপের মধ্যে সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয় হচ্ছে (Vidmate)  ভিটমেট। Vidmate অ্যাপটি আপনি মোবাইল ও ল্যাপটপ বা কম্পিউটারে ডাউনলোড ও ইন্সটল করে নিয়ে খুব সহজেই অডিও, ভিডিও, অ্যাটাচমেন্ট ফাইল ডাউনলোড করতে পারবেন। তবে এর অনেক নকল ভার্সন ও রয়েছে।

আজকের এ লেখাটিতে (Vidmate )ভিটমেট অ্যাপ কি, Vidmate অ্যাপের সুবিধা ও আসল ভিটমেট চেনার উপায় এবং ডাউনলোড পদ্ধতি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা করা হলো।

ভিটমেট (Vidmate )কি?

ভিটমেট (Vidmate ) হল চমৎকার একটি ভিডিও ডাউনলোডার অ্যাপস। ইউটিউব এর ভিডিও ডাউনলোড করার অন্যতম একটি সহজ অ্যাপ হলো Vidmate। শুধুমাত্র ইউটিউব না এই vidmate app দিয়ে আপনি অনেকগুলো ওয়েবসাইটের ভিডিও, অডিও ডাউনলোড করতে পারবেন। Vidmate ব্যবহার করা অনেক সহজ তাই এটি অনেক জনপ্রিয়।

ভিটমেট (Vidmate )অ্যাপ ব্যবহারের সুবিধা

১) খুব দ্রুত সময়ে ভিডিও ডাউনলোড হয়।
২) বিভিন্ন রেজুলেশনে ভিডিও ডাউনলোড করা যায়। একেক রেজুলেশনের জন্য ভিডিওর ফাইল সাইজ ও ভিন্ন ভিন্ন হয়, যার ফলে যদি কারো ডাটা কম থাকে তবে সে চাইলে কম রেজুলেশনের ভিডিও ডাউনলোড করতে পারে, এতে তার ডাটা খরচ কম হবে। রেজুলেশন বাড়ার সাথে সাথে ভিডিওর ফাওল সাইজ ও বৃদ্ধি পায়। Vidmate ব্যবহার করে 144p, 360p, 720p, 1080p এমন বিভিন্ন রেজুলেশনে ভিডিও ডাউনলোড করা যায়।
৩) ভিডিও থেকে শুধুমাত্র অডিও ডাউনলোড করা যায়, আলাদা করে আর কনভার্টার অ্যাপ প্রয়োজন হয়না। কোন ইউটিউব গানের ভিডিওতে আপনার যদি শুধু MP3 বা MP4 আকারে শুধু অডিওটি প্রয়োজন হয়, তাহলে Vidmate দিয়ে ভিডিও বাদ দিয়ে শুধু অডিও ডাউনলোড করার ও অপশন রয়েছে।
৫) ভিটমেট অ্যাপে ইউটিউবের বাইরেও বিভিন্ন ওয়েব সিরিজ, মুভি ইত্যাদি ডাউনলোড করার অপশন থাকে। ফলে টরেন্টের মতো Vidmate App দিয়েও চাইলে এসব মুভি বা ওয়েব সিরিজ নামিয়ে দেখতে পারেন কিংবা সরাসরি অনলাইনেও দেখতে পারেন।
৬) Vidmate App ব্যবহার করে আপনার স্টোরেজের বিভিন্ন ভিডিও, অডিও, অ্যাপস ইত্যাদি লক করা সম্ভব। এর ফলে লক করা সেসব ভিডিও বা অ্যাপস শুধুমাত্র পাসওয়ার্ড দিয়ে আপনিই এক্সেস করতে পারবেন, আর তা নরমাল ফোনের স্টোরেজে ধরাও পড়বেনা।
৭) ভিটমেটের মাধ্যমে একজনের ডিভাইস থেকে অন্যজনের ডিভাইসে ভিডিও, অডিও, অ্যাপস ইত্যাদি বিনিময় করা সম্ভব।
৮) ইউটিউব, ফেসবুক, ইন্সটাগ্রাম এসব আলাদা আলাদা সাইটের জন্য আলাদা আলাদা ডাউনলোডার অ্যাপ আপনাকে ব্যবহার করতে হলো না। Vidmate অ্যাপ দিয়েই সব ধরনের সাইট থেকেই ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন।
৯) Vidmate App দিয়ে আপনি ইউটিউব ফেসবুক এগুলো থেকে যেমন ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন তেমনি এসব সাইট সাধারনভাবে চালাতেও পারবেন, অর্থাৎ এটিকে ব্রাউজার হিসেবেও ব্যবহার করতে পারবেন।

আসল ভিটমেট (Vidmate App) চেনার উপায়

Vidmate App টি এতটাই জনপ্রিয় যে বর্তমানে এর নাম ব্যবহার করে অনেকগুলো ভিডিও ডাউনলোডার অ্যাপ তৈরি হয়েছে। যদিও এগুলো সবগুলো আসল ভিটমেট না। আপনি যদি আসল Vidmate app download করে নিতে চান তাহলে অবশ্যই আপনাকে তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট থেকে নিতে হবে। এছাড়াও কিছু অ্যাপ ডাউনলোডিং এর সাইট রয়েছে যেগুলো থেকে আপনি আসল Vidmate app download করতে পারবেন। এরপরেও আমি এই পোস্টেই আসল ভিটমেট অ্যাপ ডাউনলোড করার লিংক দিয়ে দিব।

যেসকল উপায়ে আপনি চিনতে পারবেন আসল না নকলঃ

    • ভিটমেট কখনোই গুগল প্লেস্টোরে পাওয়া যাবেনা। তাই প্লেস্টোরে এরকম নামের যতগুলো অ্যাপ আছে, সেগুলো নকল বিধায় এগুলো ডাউনলোড করবেন না।
    • ভিটমেটের ফাইল সাইজ অত বেশি হয়না আর এটি সাধারন অ্যাপের চেয়ে বেশি কোন পারমিশন চায়না। যদি কোন ওয়েবসাইটে এরকম অ্যাপ দেওয়া থাকে যার ফাইল সাইজ অনেক বেশি বা একেবারেই কম আবার অনেক ধরনের পারমিশন চায়, তবে সেটি আসল নয়।
  • আসল ভিটমেট অ্যাপটি ডাউনলোড করার সবচেয়ে নিরাপদ উপায় হচ্ছে ভিটমেটের অফিশিয়াল ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করে নেওয়া। এর অফিশিয়াল ওয়েবসাইটটি হচ্ছে vidmateapp.com

কেন আসল ভিটমেট (Vidmate) ব্যবহার করতে হবে?

  • আসল Vidmate ছাড়া বাকি অ্যাপগুলোতে আপনি অত স্বাচ্ছন্দ্যের সাথে ব্যবহার করতে পারবেন না। সেসব অ্যাপ থেকে ভিডিও ডাউনলোড এর প্রক্রিয়া অনেক জটিল।
  • ভিটমেটে ডাউনলোড স্পিড বেশ দ্রুত গতির হলেও অন্যান্য নকল ভিটমেট অ্যাপের ক্ষেত্রে তা অনেক ধীরগতির হয়ে থাকে।
  • আসলটির মতো এতে ভিডিও ডাউনলোড এর সময় ভিন্ন ভিন্ন এতগুলো রেজুলেশনে ভিডিও ডাউনলোড সম্ভব হয়না৷
  • আসল ভিটমেটে যেমন বিভিন্ন মুভি, ওয়েব সিরিজ, গেমস ইত্যাদির বিশাল কালেকশন থাকে অন্যান্য একই নামধারী নকল অ্যাপগুলোতে তা থাকে না বা খুব কম সংখ্যক থাকে। 
  • নকল অ্যাপগুলোতে প্রচুর পপ-আপ অ্যাড দেখায়, যা আপনার কাছে অ্যাপটি ব্যবহারের সময়ে বিরক্তির কারন হবে।
  • যেহেতু Vidmate App প্লেস্টোর এর বাইরে থেকে ডাউনলোড করতে হয়, তাই আসলটি বাদ দিয়ে কোন ওয়েবসাইট থেকে নকল অ্যাপ ডাউনলোড করলে তা দ্বারা আপনার ডিভাইসের ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা থাকে। যেমন সে অ্যাপটি একটি মালওয়্যার ভাইরাস হতে পারে, যা আপনার একাউন্ট এর তথ্য চুরি বা অন্যান্য ক্ষতি করতে পারে।

অর্থাৎ, ভিটমেটের সকল সুবিধা পাওয়ার জন্য এবং সহজে ও নিরাপদে ভিডিও / অ্যাপ ডাউনলোডের জন্য নকল নামের অ্যাপগুলোকে সতর্কতার সাথে এড়িয়ে আসল অ্যাপটিই ব্যবহার করতে হবে।

ভিটমেট অ্যাপস (Vidmate App) এর সুবিধাগুলো

ভিটমেট এর অনেকগুলো সুবিধা রয়েছে।  তাছাড়া আমরা এর আগে কয়েকটি সুবিধার কথা উল্লেখ করেছি। তবুও আপনারা এক নজরে Vidmate এর কিছু সুবিধা নিম্নে দেখে নিতে পারেন-

  • আপনার ইন্টারনেট কানেকশন slow  হলেও Vidmate ব্যবহার করতে পারবেন।
  • Vidmate ব্যবহার করে যে কোন সোশ্যাল মিডিয়ার ভিডিও ডাউনলোড করতে পারবেন।
  • যেকোন ভিডিও অডিও ভার্শন ডাউনলোড করতে পারবেন
  • ভিডিও, অডিও ডাউনলোড করার জন্য ফাইল সাইজ দেয়া থাকে তাই আপনার প্রয়োজন অনুসারে ফাইল সাইজ ব্যবহার করে ডাউনলোড করতে পারবেন।
  • Vidmate অ্যাপের মাধ্যমে অনেকগুলো অ্যাপ ব্যবহার করতে পারবেন।
  • যাদের ডাটা বা ইন্টারনেট কানেকশন ব্যবহার করা সীমিত। তারা video or audio download করে offline এ দেখতে পারবেন।

Comments

No comments yet. Why don’t you start the discussion?

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *